সংসার ভাঙার গুঞ্জন: জন্মদিনের শেষ লগ্নে অভিষেককে কী বার্তা দিলেন ঐশ্বরিয়া

ভালোবেসে ঘর বেঁধেছেন বলিউড তারকা দম্পতি ঐশ্বরিয়া রায় ও অভিষেক বচ্চন। বিয়ের পর বহুবার তাদের সংসার ভাঙার গুঞ্জন চাউর হয়েছে। ফের গুঞ্জন উড়ছে, বচ্চন পরিবারের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো যাচ্ছে না ঐশ্বরিয়ার। শ্বশুরবাড়ি ছেড়ে বাবার বাড়িতে গিয়ে থাকছেন তিনি। শুধু তাই নয়, সংসার ভাঙার খবরও বাতাসে ভেসে বেড়াচ্ছে। গত কয়েক মাস ধরে বচ্চন পরিবারের সঙ্গে ঐশ্বরিয়ার দূরত্বের বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন ধরনের খবর প্রকাশিত হলেও টুঁ-শব্দটি করেননি কেউ-ই। চুপ রয়েছেন ঐশ্বরিয়াও। বচ্চন পরিবার ও ঐশ্বরিয়ার নীরবতা সংসার ভাঙনের খবরের আগুনে ঘি হিসেবে কাজ করে। ৫ ফেব্রুয়ারি ৪৮ বছর বয়সে পা রাখেন অভিষেক বচ্চন। সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকে তাকে শুভেচ্ছা জানান। কিন্তু সারাদিন নীরব ছিলেন ঐশ্বরিয়া। এতে আরো জোরালো হয় তাদের সংসার ভাঙার গুঞ্জন। তবে এদিন সন্ধ্যায় স্বামীর জন্য ‘শান্তি’ কামনা করেন। ঐশ্বরিয়া তার ইনস্টাগ্রামে একটি ছবি পোস্ট করেন। তাতে মেয়ে আরাধ্য ও অভিষেকের সঙ্গে ফ্রেমবন্দি হয়েছেন ঐশ্বরিয়া। এ ছবির ক্যাপশনে তিনি লেখেন, ‘তোমাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা। সৃষ্টিকর্তা তোমাকে সুখ, ভালোবাসা, শান্তি ও সুস্বাস্থ্য দান করুক। উজ্জ্বল হও।’ এ পোস্টের কমেন্ট বক্সে একটি মন্তব্য করেন ঐশ্বরিয়া। তাতে এ অভিনেত্রী লেখেন, ‘আমি আনন্দিত যে, আরাধ্য দেখতে তার বাবা কিংবা মায়ের মতো নয়। কিন্তু বাবা-মায়ের মিশ্রণ। তার নিজস্ব ইমেজ রয়েছে।’ দিন শেষে স্বাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানানোকে ইতিবাচকভাবে দেখছেন না নেটিজেনরা। একজন মন্তব্য করেছেন, ‘তিনি তার স্বামীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। কিন্তু পোস্টে প্রিয় স্বামী বা অন্য কিছু লেখেননি।’ আরেকজন লেখেন, মনে হয় তাদের বিচ্ছেদের গুঞ্জন সত্যি।’ এমন অসংখ্য মন্তব্য ভেসে বেড়াচ্ছে কেমেন্ট বক্সে। ঐশ্বরিয়া-অভিষেক অনেক পুরোনো বন্ধু। ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে একসঙ্গে সিনেমায় কাজ করেছেন তারা। ‘ঢাই আকসার প্রেম কা’ সিনেমায় প্রথম একসঙ্গে কাজ করেন তারা। এখান থেকেই তাদের বন্ধুত্বের সূচনা। যা পরবর্তীতে প্রেমে রূপ নেয়।

২০০৭ সালের ২০ এপ্রিল বিয়ে করে সংসার জীবন শুরু করেন অভিষেক-ঐশ্বরিয়া। ২০১১ সালের ১৬ নভেম্বর এই দম্পতির ঘর আলো করে জন্ম নেয় কন্যা আরাধ্য।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top