শিবগঞ্জে পদ্মা’র নির্জন চর থেকে নিখোঁজ বৃদ্ধার মরদেহ

শিবগঞ্জ উপজেলার পাঁকা ইউনিয়নের নিশিপাড়া গ্রাম সংলগ্ন পদ্মা নদীর দূর্গম ও নির্জন একটি চর থেকে রেজিয়া বেগম নামে ১০ দিন পূর্বে নিখোঁজ এক বৃদ্ধার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশ জানায়, গতকাল সন্ধ্যা ৬টার দিকে স্থানীয়দের দেয়া খবরের ভিত্তিতে মরদেহ উদ্ধার হয়। স্থানীয়রা দুপুর দেড়টার দিকে মরদেহের সন্ধান পান। রেজিয়া শিবগঞ্জের কানসাট পুকুরিয়া এলাকার মৃত মমতাজ আলীর স্ত্রী।
পরিবারের বরাতে পুলিশ জানায়, গত ১৫ মার্চ বাড়ি থেকে নিখোঁজ হন রেজিয়া। তিনি বিগত ২৫ বছর যাবৎ কিছুটা মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন। মাঝে মাঝে বাড়ি থেকে এদিক ওদিক চলে যেতেন। গত ১৫ মার্চ নিখোঁজের পর পরিবারের পক্ষ থেকে তাঁর খোঁজ চলছিল। পরিবারের পক্ষে মাইকিং সহ বিভিন্নভাবে তাঁকে খোঁজা হচ্ছিল। শিবগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) এখলাছুর রহমান বলেন, বৃদ্ধার বাড়ি থেকে মরদেহ উদ্ধারের স্থানটি বেশ দূরে। বৃদ্ধা বা তাঁর মরদেহ কিভাবে ওই চরে গেল বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। এ ব্যাপারে স্থানীয় বা কোন সূত্রে নিশ্চিত কিছু জানা যায় নি। আংশিক অর্ধগলিত মরদেহে কোন পোষাক বা বাহ্যিক আঘাতের চিহ্ন ছিল না। ২/৩ দিন পূর্বে বৃদ্ধার মৃত্যু হয় বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। প্রাথমিকভাবে মৃত্যুর কারণ বোঝা যায় নি। তবে পানিতে ডুবে বৃদ্ধার মৃত্যু হয় নি বলে ধারণা করা হচ্ছে। পরিবারের সদস্যরা মৃত্যুর ব্যাপারে এখনও কোন অভিযোগ করেন নি। খবর পেয়ে বৃদ্ধার ভাই মহসিন আলীসহ পরিবারের সদস্যরা ঘটনাস্থলে মরদেহ শনাক্ত করেন। পুলিশ কর্মকর্তা এখলাছ আরও বলেন,মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top