মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা দিল জেলা পুলিশ

মঙ্গলবার :: ১৭.১২.২০১৯।।

চাঁপাইনবাবগঞ্জে জেলা পুলিশে কর্মরত এবং অবসরপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধাদেরকে সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। আজ চাঁপাইনবাবগঞ্জ পুলিশ লাইনসে এ সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন, ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মাহবুব আলম খান।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাহবুব আলম বলেন, মুক্তিযুদ্ধের সময় বাংলাদেশ পুলিশই প্রথম সাড়া দেয়। রাজারবাগ পুলিশ লাইনস থেকে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হয় পুলিশ। আমি এজন্য গর্ববোধ করি। কারণ আমি বাংলাদেশ পুলিশের একজন সদস্য। আজকে এখানে যারা মুক্তিযোদ্ধা আছেন তাদের জন্য আমরা বর্তমানে শান্তিপূর্ণভাবে পুলিশে কর্মরত আছি। দেশের জন্য মুক্তিযোদ্ধারা নিজেদের জীবনকে বিপন্ন করেছিলেন। নিশ্চিত মৃত্যু জেনেও যারা যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন তাদেরকে অবশ্যই সম্মান করা উচিত। তিনি বলেন, ২০১১ সালে বাংলাদেশ পুলিশকে স্বাধীনতা পদক দেয়া হয়। আর এটা সম্ভব হয়েছে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য। তারা যদি নিজেদের জীবনকে বিপন্ন করে যুদ্ধ না করতেন তাহলে হয়তো হতো না। তাই আমরা পুলিশের সদস্যসহ অন্যরা সকলেই মুক্তিযোদ্ধাদের শ্রদ্ধা করব, ভালোবাসব। তাদের কাছ থেকে আমাদের অনেক কিছু শেখার আছে। আমরা তাদের শেখানো পথে চলার চেষ্টা করব।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নিসাত তাবাসসুমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন, মুক্তিযোদ্ধা রুহুল আমিন, মুক্তিযোদ্ধা ও অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার আতাউর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ (সদর সার্কেল) সুপার ইকবাল হোছাইন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গোমস্তাপুর সার্কেল) জাহিদুর রহমান। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শিপ্রা রানী দাস, জেলা গোয়েন্দা শাখার অফিসার ইনচার্জ বাবুল উদ্দীন সরদার, সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জিয়াউর রহমানসহ জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে আগত মুক্তিযোদ্ধা ও জেলা পুলিশের অন্য কর্মকর্তারা। অনুষ্ঠানে জেলার বিভিন্ন উপজেলার ৫৯ জন মুক্তিযোদ্ধাকে সংবর্ধনা দেয়া হয়। এসময় ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মাহবুব আলম খান বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের ত্যাগের ইতিহাস স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে।

Check Also

জেলাশহরে গাড়িতে করে ন্যায্যমূল্যে মুরগি ডিম ও দুধ বিক্রি শুরু

১২ এপ্রিল সোমবার, ২০২১। করোনা পরিস্থিতিতে জনসাধারণের প্রাণিজ পুষ্টি নিশ্চিতকরণে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরে ভ্যান ও ট্রাকে …