বেড়েই চলছে পেঁয়াজের দাম প্রশাসনের নজরদারি বৃদ্ধি

চাঁপাইনবাবগঞ্জের বাজারে বেড়েই চলেছে পেঁয়াজের দাম। এদিকে দাম বৃদ্ধির পরপরই প্রশাসনের পক্ষ থেকে নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। আর নিষেধাজ্ঞার মধ্যেই ভারত থেকে কিছু পেঁয়াজ এসেছে।
গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ভারত সরকারের পক্ষ থেকে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। এর ফলে ৭ ডিসেম্বর হতে আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত ভারত সরকার বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি করবে না।
পেঁয়াজ আমদানি বন্ধের এ খবরের পর থেকেই চাঁপাইনবাবগঞ্জের বাজারে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে পেঁয়াজের দাম। রবিবার দেশী ছোট পেঁয়াজ ২৪০ টাকা ও নতুন পেঁয়াজ ২৪০ টাকা এবং ভারতীয় পেঁয়াজ ১৯০ টাকা থেকে ২০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে বলে বিক্রেতারা জানিয়েছেন।
অন্যদিকে পেঁয়াজের বাজার স্থিতিশীল রাখতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে জেলাশহরের পুরাতন বাজারসহ কয়েকটি খুচরা দোকান ও আড়তে সতর্কতামূলক অভিযান পরিচালনা করা হয়। এছাড়াও রহনপুর স্টেশন বাজার, পুরাতন বাজার, গোমস্তাপুর, শিবগঞ্জ প্রভৃতি এলাকায় তদারকি কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।
অপরদিকে পেঁয়াজ রপ্তানিতে ভারত নিষেধাজ্ঞা দিলেও পূর্বের এলসির ৭৪৩ টন পেঁয়াজ চাঁপাইনবাবগঞ্জের সোনামসজিদ স্থলবন্দর দিয়ে এসেছে। গত শনিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ২৬ ট্রাকে এই পেঁয়াজ স্থলবন্দরের ইয়ার্ডে প্রবেশ করে। তবে এরপর আর কোনো পেঁয়াজ আসনি।
রবিবার সন্ধ্যায় পানামা-সোনামসজিদ পোর্ট লিংক লিমিটেডের পোর্ট ম্যানেজার মাইনুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, শনিবার থেকে ভারত পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করার ঘোষণা দিলেও ওই দিনই ২৬ ট্রাকে ৭৪৩ টন পেঁয়াজ পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে। আমদানিকারকরা ভারতীয় পেঁয়াজ কেনার জন্য এর আগে যে এলসি করেছিলেন, সেসব পেঁয়াজ স্থলবন্দরে এসেছে। তবে আর কোনো পেঁয়াজ আসবে না বলে তিনি জানান।

Scroll to Top