নানান আয়োজনে রেডিও মহানন্দার ৮ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

শনিবার :: ২৮.১২.২০১৯।

চাঁপাইনবাবগঞ্জে নানান আয়োজনে একমাত্র কমিউনিটি রেডিও-রেডিও মহানন্দা ৯৮.৮ এফএম’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্্যাপিত হয়েছে। আজ রেডিও মহানন্দা ৯ম বছরে পদার্পণ করল। আজ সকালে জেলা শহরের বেলেপুকুরে প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটির নকীব হোসেন মিলনায়তনে প্রয়াস ফোক থিয়েটার ইনস্টিটিউটের শিল্পীদের সাংস্কৃতিক পরিবেশনা, অতিথিদের আলোচনা আর রেডিওটির শ্রোতাদের মতামত প্রকাশের মধ্যদিয়ে উদ্যাপন করা হয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। রেডিও মহানন্দা’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হাসিব হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও রেডিও মহানন্দা’র উপদেষ্টা কমিটির সভাপতি আলমগীর হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব আলম খান, শাহ নেয়ামতুল্লাহ কলেজের অধ্যক্ষ আনোয়ারুল ইসলাম, চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি মাহবুবুল আলম, সিটি প্রেস ক্লাব-চাঁপাইনবাবগঞ্জের সহসভাপতি কামাল শুকরানা, পাঠানপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফারুকা বেগম, রাজারামপুর হামিদুল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আলি আশরাফ, রেডিও মহানন্দা’র স্টেশন ম্যানেজার আলেয়া ফেরদৌস, গৌড় বাংলার বার্তা সম্পাদক সাজিদ তৌহিদ, রেডিও মহানন্দার প্রাক্তন কর্মী ও সাংবাদিক জাকির হোসেন পিংকু, ডিবিসি টেলিভিশনের চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি জহুরুল ইসলাম, রেডিও মহানন্দার টেকনিক্যাল অফিসার রেজাউল করিমসহ অন্যরা। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহবুব আলম খান বলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে যে কটা গণমাধ্যম আছে তার মধ্যে রেডিও মহানন্দা অন্যতম। রেডিও মহানন্দা মাদক, ইভটিজিং, জঙ্গিবাদ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে প্রোগ্রাম করে এবং বেশ কয়েকবার আমি সেসব প্রোগ্রামে অংশগ্রহণ করি। জেলার বিভিন্ন তথ্য প্রচার করার জন্য একটি মাধ্যম দরকার। এর জন্য চাঁপাইনবাবগঞ্জের একটি মাধ্যম হচ্ছে রেডিও মহানন্দা, যার মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের তথ্য বা কথা জেলাবাসীকে জানানো যায়। বর্তমানে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা একটি শান্তিপূর্ণ জেলা হিসেবে বিবেচনা করতে পারি। এর পেছনে গণমাধ্যম হিসেবে রেডিও মহানন্দার অগ্রণী ভূমিকা রয়েছে। রেডিও মহানন্দা আরো অনেক দূর এগিয়ে যাবে। সারা বাংলাদেশে রেডিও মহানন্দা জনপ্রিয়তা পাবে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও রেডিও মহানন্দার উপদেষ্টা কমিটির সভাপতি আলমগীর হোসেন বলেন, রেডিও মহানন্দা আজ ৮ বছর পেরিয়ে ৯ বছরে পদার্পণ করল। তাকে অন্তরের অন্তস্থল থেকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। রেডিও মহানন্দার চমৎকার শ্লোগান রয়েছে, ‘জীবনের কথা জীবনের সুর’। এটি যে দিয়েছে তাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। জীবনের কথাটা যদি বলা হয় তাহলে সেখানে আনন্দের সুর বেজে উঠবে। আর যদি এই কথাটা মন খারাপের দিকে যায় তাহলে বেদনার সুর বেজে উঠবে। হাসি-কান্না, আনন্দ-বেদনা সবকিছু নিয়েই আমাদের জীবন। তাদের কথাগুলো উপস্থাপন করে সবার মাঝে ছড়িয়ে দেয়ার কাজটি করছে রেডিও মহানন্দা ৯৮.৮ এফএম। এভাবে চলতে চলতে তারা কিন্তু ৮ টি বছর পার করে ৯ বছরে পদার্পণ করল। তিনি বলেন, আজকে রেডিও মহানন্দার ৮ম বছর ছোট পরিসরে পালন করলাম। আগামীতে আরো বড় পরিসরে করার চেষ্টা করব। আমাদের সাধ আছে কিন্তু সাধ্য নেই। আমি বা আমরা যেখানেই থাকি সবসময় আপনাদের সাথে থাকব। আমরা রেডিওতে কথাবন্ধুদের কথা শুনি এবং শ্রোতারা তা শুনেন আজকে তারা সবাই একসাথে এখানে আছে। তাদের মাঝে একটা মেলবন্ধন বা সেতুবন্ধন তৈরি হলো। এই ধারাবাহিকতা আমরা বজায় রাখতে চাই। পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ আমাদের মধ্যে আছে এবং আমরা সেটিকে ধরে রাখতে চাই। আবারো রেডিও মহানন্দার ৮ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাচ্ছি।
আলমগীর হোসেন আরো বলেন, আমরা আগামীতে কোনো একদিন রাজধানী ঢাকায় এ ধরনের অনুষ্ঠান করব। সেদিন হয়তো আমি ইউএনও থাকব না, হয়ত সরকারের কোনো বড় পদে থাকব। আর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব আলম খান হয়তো বাংলাদেশ পুলিশের বড় কোনো পদে থাকবেন। আমরা হয়তো সেদিন চাঁপাইনবাবগঞ্জে থাকব না কিন্তু সেদিনও রেডিও মহানন্দার পাশে থাকব। শাহ নেয়ামতুল্লাহ কলেজের অধ্যক্ষ ও প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটির প্রেসিডেন্ট আনোয়ারুল ইসলাম বলেন- রেডিও মহানন্দা আমাদের গর্বের প্রতিষ্ঠান, এটা আছে বলে আমরা গর্ব করি। রেডিও মহানন্দার জন্য আমরা চাঁপাইনবাবগঞ্জের ইতিহাস ঐতিহ্য সম্পর্কে জানতে পারি। যেসব গান, সংস্কৃতি হারিয়ে যেতে বসেছে এসব কিছু আমরা রেডিও মহানন্দার মাধ্যমে শুনতে পারি, জানতে পারি। চাঁপাইনবাবগঞ্জের কৃষ্টি-কালচারের সাথে রেডিও মহানন্দা জড়িত এবং এর সাথে আমার রক্তের সম্পর্ক আছে। রেডিও মহানন্দা আগামীতে আরো সুন্দর ও সার্থক হোক এবং সারাবিশ্বে জেলার সংস্কৃতি তুলে ধরুক। মানুষ অন্ধকার থেকে আলোর পথ দেখুক।
পাঠানপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফারুকা বেগম বলেন- আমি রেডিও মহানন্দাকে ধন্যবাদ জানাই। মহানন্দা নদী যেমন আমাদের আত্মার সাথে জড়িয়ে আছে। তেমনি রেডিও মহানন্দাও আমাদের সত্তার সাথে জড়িয়ে আছে। আমি রেডিও মহানন্দার উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করি। আমরা হৃদয়ে লালন করছি রেডিও মহানন্দাকে এবং আগামীতেও করব। এ সময় তিনি ফ্রিকোয়েন্সি বাড়ানোর পরামর্শ দেন।
রেডিও মহানন্দার লগড়্যা পাঁচ ফোড়ং অনুষ্ঠানের নানা ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন- আমার একটা জিনিস খুব ভালো লাগে এটা চাঁপাইনবাবগঞ্জের কমিউনিটি রেডিও। এই রেডিওর শ্রোতারা বিভিন্ন জায়গা থেকে তাদের মনের কথা বলতে পারেন। দেশ-বিদেশের বিভিন্ন ধরনের শ্রোতা আমাদের সাথে যুক্ত থাকেন। তারা বলেন আপনাদের চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভাষা শুনতে খুব ভালো লাগে। আর যারা প্রবাসে থাকেন তারা বলেন যে আমরা যখন রেডিও মহানন্দা শুনি তখন আমাদের মনে হয় না যে আমরা বিদেশে আছি। আমাদের মনে হয় আমরা যেন চাঁপাইনবাবগঞ্জে বসে রেডিও মহানন্দা শুনছি। তিনি বলেন, এই অনুষ্ঠানে চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভাষা নিয়ে কথা বলি আমরা। দেশ-বিদেশের অনেক শ্রোতার কাছ থেকে এসএমএস পাই। নওগাঁতেও অনেকেই আমাদের এই অনুষ্ঠান শুনেন। আজকে আমার খুব ভালো লাগছে, সুনামের সাথে আমরা ৮ টি বছর পার করলাম। সকলের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা যদি আমাদের পাশে থাকেন তাহলে আমরা আগামীতে আরো ভালো করে অনুষ্ঠান করব ইনশাআল্লাহ। রেডিও মহানন্দার শ্রোতা সাগর আলী বলেন- আমি ২০১১ সাল থেকে রেডিও মহানন্দা শুনি। তিনি বলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের মানুষ এমন একটি প্রতিষ্ঠান পেয়েছে; যেখানে শিক্ষা, সংস্কৃতিসহ বিভিন্ন বিষয়ের ওপর তথ্য দিচ্ছে রেডিও মহানন্দা। এ সময় তিনি আরো বলেন আপনাদের মন যখন ভালো থাকে না তখন আপনাদের জন্য বিনোদনের ব্যবস্থা করছে। এই রেডিও মহানন্দা যেন যুগ যুগ ধরে মানুষের হৃদয় জয় করে থাকতে পারে এই প্রত্যাশা আমি করছি।
রেডিও মহানন্দার শ্রোতা আরাফাত শামীম বলেন, আমি রেডিও মহানন্দা শুরু থেকেই শুনি। রেডিও মহানন্দায় অনেক জনসচেতনতামূলক অনুষ্ঠান সম্প্রচারিত হচ্ছে। সেখান থেকে আমরা অনেক উপকার পাচ্ছি এবং উপকৃত হচ্ছি। এ সময় তিনি চিকিৎসা বিষয়ক সরাসরি অনুষ্ঠান সম্প্রচারের পরামর্শ দেন। রেডিও মহানন্দার শ্রোতা হিমু বলেন, রেডিও মহানন্দার সাথে আমি অনেক দিন থেকে আছি। তার সাথে আমার আত্মার সম্পর্ক, খুব ভালো লাগে। অনেকটা কাছের মানুষ মনে হয়। আমার হৃদয়ের সাথে মিশে আছে রেডিও মহানন্দা। আমি আপনাদের ভালোবাসার কাছে সত্যি ঋণি। আমি যে লেখালেখি করি সেটা আপনাদের উৎসাহে। আপনাদের যে উৎসাহ ও ভালোবাসা পেয়েছি এই ভালোবাসার ভাগ হয় না। এই উপলব্ধিটা বলে প্রকাশ করা যায় না। সুর্যের হাসি ক্লিনিকের ম্যানেজার শামীমা আকতার বলেন, রেডিও মহানন্দার ৮ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আসতে পেরে খুব ভালো লাগছে। আমি রেডিও মহানন্দার পরিবার পরিকল্পনা ও কিশোর-কিশোরীদের প্রজনন স্বাস্থ্য সেবা বিষয়ক আলোচনা অনুষ্ঠানে আলোচনা করার সুযোগ পাই। আমাকে ভালো লাগে যে, আমি রেডিও মহাননন্দার মাধ্যমে জনসাধারণকে সচেতন করার জন্য কিছু কথা বলতে পারছি। ধন্যবাদ রেডিও মহানন্দা, শুভ জন্মদিন রেডিও মহানন্দা। স্টেশন ম্যানেজার আলেয়া ফেরদৌস বলেন- দেখতে দেখতে অনেক বাধা বিপত্তি অতিক্রম করে আজ আমরা আটটি বছর পার করলাম। শুধু যে বাধা বিপত্তি ছিল তা কিন্তু না; অনেক সুন্দর মুহূর্তও ছিল আমাদের মাঝে। তিনি আরো বলেন, আমরা মানুষের পাশে আছি, জেলাবাসীর কাছেই রয়েছি। আমরা সবসময় বলি, শ্রোতারা আছেন বলেই আমাদের রেডিও মহানন্দা। রেডিও মহানন্দাকে এভাবে ভালোবাসবেন। তিনি আরো বলেন, আমরা চেষ্টা করেছি চাঁপাইনবাবগঞ্জের সংস্কৃতিগুলোকে তুলে ধরার। পুরাতন ঐতিহ্য দিন দিন হারিয়ে যাচ্ছে সেই জিনিসটাকে ধরে রাখার জন্যই তো রেডিও মহানন্দা। তিনি বলেন, রেডিও মহানন্দা যেমন আপনাদের, তেমনি আপনারাও রেডিও মহানন্দার জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেবেন। আপনারা যেসব প্রতিষ্ঠানগুলোকে চিনেন তারা আমাদেরকে বিজ্ঞাপন দিয়ে সহযোগিতা করতে পারেন। শুধু আজকে না আগামী দিন, আগামী বছরগুলো আপনাদের ভালো কাটুক এই প্রত্যাশায় করি। রেডিও মহানন্দার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হাসিব হোসেন বলেন, আমরা চেষ্টা করি সকলের অংশগ্রহণে সামনে এগিয়ে যাব। আমরা কমিউনিটি রেডিও নীতিমালা অনুসারেই কাজ করছি। আমরা নীতিমালার বাইরে কিছু করতে পারব না। তবে শ্রোতাদের চাহিদা মাথায় রেখেই আমাদের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। আমরা শ্রোতাদের সমলোচনা শুনতে চাই তবে সেটি হতে হবে গঠনমূলক। শ্রোতাদের অনেক চাওয়ার আছে, পাওয়ার আছে। প্রত্যেকটি শ্রোতা ক্লাব রেডিওর এক একটি সম্প্রচার মাধ্যম। আমি চাই শ্রোতা ক্লাবের প্রত্যেকটা সদস্য রেডিওর সাথে কাজ করুক। তাদের কমিউনিটির কথা তারা নিজেরাই রেকর্ড ও এডিটিং করুক। এ সময় তিনি আরো বলেন, আমাদেরকে অনেক কিছু ভেবে পথ চলতে হচ্ছে। কখনো দুই পা সামনে এগোলে, এক পা পিছনে আসতে হয়। এভাবেই আমরা পথ চলছি এবং এভাবেই এগিয়ে যাব সামনের দিকে। এসময় তিনি রেডিও মহনন্দার উপদেষ্টা ও ব্যবস্থাপনা কমিটি, শ্রোতাদের ধন্যবাদ জানিয়ে তার বক্তব্য শেষ করেন। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি গোলাম মোস্তফা মন্টু, কবি এনামুল হক তুফান, রেডিও মহানন্দার প্রধান বার্তা সম্পাদক আজিজুর রহমান শিশির, সাপ্তাহিক সোনামসজিদের সম্পাদক জোনাব আলী, প্রয়াসের জ্যেষ্ঠ উপপরিচালক নাসের উদ্দিন, সহকারী পরিচালক (নিরীক্ষণ) আবুল খায়ের খান, কনিষ্ঠ সহকারী পরিচালক মু. তাকিউর রহমান, কর্মসূচি ব্যবস্থাপক ফারুক আহমেদ, তানভীর আহমেদ রিয়াদ, ব্যবস্থাপক (ফাইন্যান্স) শফিকুল ইসলাম, নাচোল প্রেস ক্লাবের সভাপতি আবদুস সাত্তার, শিবগঞ্জ উপজেলা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইমরান আলি, গোমস্তাপুর প্রেস ক্লাবের নুর মোহাম্মদ, রেডিও মহানন্দার শিবগঞ্হ উপজেলা প্রতিনিধি নুরতাজ আলমসহ আরো অনেকে।
প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর মিলনমেলা অনুষ্ঠানের সঞ্চালনায় ছিলেন, রেডিও মহানন্দার মৌটুসী, সোনিয়া, নয়ন, আয়েশা, বাহাউদ্দিন ও জহুরুল।

Check Also

জেলাশহরে গাড়িতে করে ন্যায্যমূল্যে মুরগি ডিম ও দুধ বিক্রি শুরু

১২ এপ্রিল সোমবার, ২০২১। করোনা পরিস্থিতিতে জনসাধারণের প্রাণিজ পুষ্টি নিশ্চিতকরণে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরে ভ্যান ও ট্রাকে …