চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার জন্য ফিতরা নির্ধারণ

জেলার জন্য সদাক্বাতুল ফিতর ও যাকাত নির্ধারণের লক্ষে গতকাল এলাকার বিশিষ্ট আলেমদের নিয়ে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন অধ্যক্ষ ড. এমারন হোসেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা যাকাত ও সদাক্বাতুল ফিতর নির্ধারণ কমিটি এই সভার আয়োজন করে। সভায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার জন্য সদাক্বাতুল ফিতর বা ফিতরার পরিমাণ নির্ধারণ করা হয়। সদাক্বাতুল ফিতরের পরিমাণ হচ্ছে-

ক) ১ কেজি ৬৫৭ গ্রাম গম। গমের খুচরা মূল্য ৫০ টাকা কেজি হিসাবে ৮২ টাকা ৮৫ পয়সা বা ১ কেজি ৬৫৭ আম গম। তবে ১৫ পয়সা সমন্বয় করে জন প্রতি ৮৩ টাকা নির্ধারণ করা হয়।

খ) যবের খুচরা মূল্য ৭০টাকা কেজি হিসাবে ৩ কেজি ৩১৪ গ্রাম যবের মূল্য ২৩১ টাকা ৯৮ পয়সা। এখানে ২ পয়সা সমন্বয় করে জন প্রতি ২৩২ টাকা নির্ধারণ করা হয়।

গ) খেজুরের খুচরা মূল্য ৬০০ টাকা কেজি দরে মধ্যম মানের ৩ কেজি ৩১৪ গ্রাম খেজুর বা ৩ কেজি ৩১৪ গ্রাম খেজুরের মূল্য ১ হাজার ৯৮৮ টাকা ৪০ পয়সা। এখানে ১ টাকা ৬০ পয়সা সমন্বয় করে জন প্রতি ১ হাজার ৯৯০ টাকা নির্ধারণ করা হয়।

ঘ) ৩ কেজি ৩১৪ গ্রাম কিসমিসের খুচরা মূল্য ৬৩০ টাকা কেজি হিসাবে ৩ কেজি ৩১৪ গ্রাম কিসমিসের মূল্য ২ হাজার ৮৭ টাকা ৮২ পয়সা। এতে ১৮ পয়সা সমন্বয় করে জন প্রতি ২ হাজার ৮৮ টাকা নির্ধারণ করা হয়।

সভায় যাকাত নিয়েও সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। সভায় ইসলামী শরীয়ার অনুসরণ করে নিসবাতুল ফিতরের পরিমাণ নির্ধারণ করা হয় বলে জানানো হয়।

ইসলামিক ফাউন্ডেশন চাঁপাইনবাবগঞ্জের উপ-পরিচালক মো. আশরাফুজ্জামান শুক্রবার জুম্মার নামাজের প্রাক্কালে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে রশিদ নিয়ে যাকাত প্রদান করার জন্য মুসল্লিদের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন।

জুম্মার নামাজের আলোচনাকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের পেশ ইমাম মাওলানা মুখতার আলী যাকাত ও ফিতরার পরিমাণ নির্ধারণের বিষয়টি মুসল্লিদের সামনে তুলে ধরেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top