চাঁপাইনবাবগঞ্জে চাঞ্চল্যকর স্কুলছাত্র পারভেজের চাঞ্চল্যকর স্কুলছাত্রঘটনায় আটক ২

গোমস্তাপুর উপজেলা থেকে রবিবার সন্ধ্যায় নিখোঁজের দু’দিন পর গত গতকাল সকালে পারভেজ আহমেদ নামে ১৪ বছরের এক কিশোরের ডানচোখ উপড়ানো, ডানহাত কাটা ও ও মাথায় ধারাল অস্ত্র দিয়ে কোপ দেয়া মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় হত্যা মামলা হয়েছে। গতকাল দিবাগত গভীর রাতে নিহত পারভেজের পিতা গোমস্তাপুরের চৌডালা ইউনিয়নের শুক্রবাড়ি গ্রামের দুলাল আলী অজ্ঞাতনামাদের আসামী করে গোমস্তাপুর থানায় মামলা করেন। মামলার পরপরই রাত সাড়ে ১২টায় র‌্যাবের অভিযানে গোমস্তাপুরের বেলালবাজার থেকে পাভেজেকে অপহরণের পর হত্যা মামলায় দুই সন্দেহভাজন আটক হয়েছে। এরা হল-শুক্রবাড়ি গ্রামের আজাহার আলীর ছেলে বদিউজ্জমান ও চৌডালা উদয়নগরের তরিকুল ইসলামের ছেলে আলী হাসান সনি। তবে র‌্যাব বা পুলিশ বিকাল পর্যন্ত কেউ পারভেজের নিখোঁজ থাকা ব্যাটারিচালিত রিক্সাভ্যানটি উদ্ধার করতে পারে নি বলে নিশ্চিত করেছেন গোমস্তাপুর থানার ওসি চৌধুরী জোবায়ের আহম্মেদ।
নিহত পারভেজ চৌডালা দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির ছাত্র ছিল। অবসরে সে দরিদ্র পিতার ভ্যান চালাত। গত রবিবার সন্ধ্যায় চৌডালার উদয়নগর লইল্যাপাড়া বাজার হতে ভ্যান নিয়ে বাড়ি আসার পথে পারভেজ নিখোঁজ হয়। পবিাবারের সদস্যরা ওই রাতে তাকে অনেক খুঁজেও না পেয়ে পর দিন গত সোমবার(১ এপ্রিল) গোমস্তাপুর থানায় একটি নিখোঁজ ডায়রী করেন। পরদিন মঙ্গলবার সকালে চৌডালা ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের বাগবাড়ি গ্রামের অদুরে নিস্তারপুর নামক এলাকায় আমবাগান ও আখক্ষেত বেষ্টিত বিলের মধ্যেকার সড়কের পাশ থেকে পারভেজের রক্তাত্ব মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এদিকে বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ র‌্যাব ক্যাম্পের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, পারভেজ হত্যাকান্ডে আটক সন্দেহভাজন দু’জনকে গোমস্তাপুর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। র‌্যাব আরও জানায়, ঘটনার পরপরই র‌্যাব ক্লুলেস এই হত্যাকান্ডের ছায়াতদন্ত শুরু করে। এ ঘটনায় জড়িত অন্যদের আটকে র‌্যাবের অভিযান চলছে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top