৬ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২০শে জুন, ২০১৯ ইং | ১৭ই শাওয়াল, ১৪৪০ হিজরী | বৃহস্পতিবার | বিকাল ৫:০৯ | বর্ষাকাল
সর্বশেষ সংবাদ
Bangla Font Problem?

নূর মোহাম্মদকে বিদায় সংবর্ধনা দিল প্রয়াস

বৃহস্পতিবার :: ০২.০৫.২০১৯।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক নূর মোহাম্মদ নওগাঁ জেলায় বদলি হওয়ায় জেলার উন্নয়ন সংস্থা প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটির পক্ষ থেকে তাকে বিদায় সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। এ উপলক্ষে বৃহস্পতিবার (০২-০৫-২০১৯) সকালে প্রয়াসের নকীব হোসেন মিলনায়তনে এক আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। প্রয়াসের নির্বাহী পরিচালক হাসিব হোসেনের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের সংবর্ধিত উপ-পরিচালক নূর মোহাম্মদ।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার সমাজ সেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক নূর মোহাম্মদ তার বক্তব্যে বলেন, সকলের মেধাশক্তির দ্বারা প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটি উত্তরোত্তর এগিয়ে যাবে। আপনারা সকলে চিন্তা, মেধাশক্তি নিয়োগ করে নিষ্ঠার সাথে কাজ করবেন। মানুষকে উন্নত করতে হলে কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, ‘আমি চাঁপাইনবাবগঞ্জে আসার পর জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তর ১নং পুরস্কার লাভ করেছে। আমরা যদি নিজের চিন্তা না করে অপরের চিন্তাটা করি তাহলে কিন্তু ভালো হবে। আমি যদি নিজের চিন্তা করি তাহলে হবে না, অপরের চিন্তা করতে হবে। এ সময় তিনি বলেন, প্রয়াস এ কাজটি করে যাচ্ছে। এজন্য আমি প্রয়াসের মঙ্গল কামনা করছি; ভবিষ্যতে যেন তারা আরো এগিয়ে যায়।
সভাপতির বক্তব্যে প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটির নির্বাহী পরিচালক হাসিব হোসেন বলেন, উপ-পরিচালক নূর মোহাম্মদ জেলায় তার কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে স্বল্প সময়ে সকলের ভালোবাসা অর্জন করেছিলেন। ভালোবাসা দিলে, ভালোবাসা পাওয়া যায়, এটা আমার কাছে মনে হয়। এক হাতে তো তালি বাজে না। তালি বাজাতে হলে দুই হাতের প্রয়োজন। তিনি বলেন, প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটির ১৯৯৩ সালের ৩০ ডিসেম্বর লিখিতভাবে জন্ম হলেও ১৯৯৬ সালে আইনগত তৃপ্তি পেয়েছিল সমাজসেবা অধিদপ্তরের নিবন্ধনের মধ্য দিয়ে। অর্থাৎ আজ থেকে ২২ বছর আগে সমাজসেবা অধিদপ্তরের সাথে আমাদের নাড়ির বন্ধন। আমি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি, ধন্যবাদ জানাচ্ছি উপ-পরিচালক নূর মোহাম্মদকে এই জন্য যে, তিনি আমাদেরকে সময় দিয়েছেন এবং আমাদের ভালোবাসার টানে আবদ্ধ হয়েছেন। আমাদের সহকর্মীরা এরই মধ্যে তার গুণের কথা বলেছেন।
হাসিব হোসেন বলেন, আমি বলতে চাই যে, আমরা আপনার কর্মএলাকার মধ্যেই আছি। বর্তমানে নওগাঁতেও আমাদের ৮টি অফিস আছে। হয়তো নিয়মিত না হলেও দেখা হবে, কথাও হবে। আপনি যে স্বপ্ন দেখিয়েছেন সেই স্বপ্নটিকে ধারণ করতে চাই, জেগে থেকেই ধারণ করতে চাই। পিকেএসএফের অনুমোদনে আগামী জুনের মধ্যেই জয়পুরহাটেও দুটি ব্রাঞ্চ ওপেন করার কথা। তিনি বলেন, আমরা জেনেছি আপনার বাড়ি জয়পুরহাটে। বগুড়াতেও এই বছরে না হলেও সামনে বছরে অফিস করার চিন্তা আছে। সবমিলিয়েই আপনার সাথে আছি, আপনাদের সাথে থাকতে চাই। আমাদেরকে কাছে টেনে নিবেন, পরামর্শ দিবেন। আমরা চাই, সমাজসেবা অধিদপ্তরের সাথে থাকতে। আমরা চেষ্টা করেছি, সেটি আমাদেরকে আরো সাহসী করেছে ও স্বেচ্ছাসেবী বা মানুষের উপকারের জন্য কাজ করার যে জায়গাটা সেই জায়গায় উদ্বুদ্ধ করবেন। তিনি বলেন-আমাদের উপ-পরিচালকের আগামী দিন আরো সুন্দর কাটুক। আমাদের এই ভালোলাগা, এই ভালোবাসা, চিরন্তন হোক এবং আগামীতে আরো বড় দায়িত্ব পালন করেন। এই প্রত্যাশা আমাদের সকলের। প্রয়াসের সাথে থাকবেন, প্রয়াসের উন্নয়নে আপনার সহযোগিতা একান্তই কাম্য।
সভায় উপস্থিত ছিলেন সমাজসেবা অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক সিরাজুম মুনির আফতাবী। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, সমাজসেবা অধিদপ্তরে আমরা স্যারকে খুব অল্প সময়ে পেলাম। এর মধ্যে স্যার আমাদের অনেক নির্দেশনা দিয়েছেন এবং সমাজসেবা পরিবারকে যেভাবে এগিয়ে নিয়ে গেছেন এটা আমাদের কাছে স্মৃতি হয়ে থাকবে। তিনি বলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটি আসলে একটা ভালো সংস্থা। তারা অনেক কাজ করেছে। আমাদের সমাজসেবা অধিদপ্তর থেকে এইটুকু চাওয়া যে, আপনারা আরো হাইলাইটস হন, সেভাবেই নিজেদেরকে তৈরি করেন। আমরা আপনাদের যে কোনো প্রয়োজনে পাশে আছি এবং থাকব।
এসময় আরো বক্তব্য দেন প্রয়াসের জ্যেষ্ঠ উপ-পরিচালক নাসের উদ্দীন সজল, কনিষ্ঠ সহকারী পরিচালক মু. তাকিউর রহমান, কর্মসূচি ব্যবস্থাপক ফারুক আহম্মেদ। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন সহকারী পরিচালক আবুল খায়ের খান ও তাজেমুল হক, কর্মসূচি ব্যবস্থাপক তানভীর আহম্মেদ রিয়াদসহ প্রয়াস, রেডিও মহানন্দা এবং ফোক থিয়েটার ইনস্টিটিউটের কর্মকর্তাবৃন্দ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন প্রয়াসের সহকারী ব্যবস্থাপক (প্রশিক্ষণ) আব্দুস সালাম।
আলোচনা শেষে প্রয়াসের পক্ষ থেকে প্রধান অতিথির হাতে ক্রেস্ট ও স্যুভেনির তুলে দেন প্রয়াসের নির্বাহী পরিচালক হাসিব হোসেনসহ অন্য কর্মকর্তারা। পরে প্রয়াস ফোক থিয়েটার ইনস্টিটিউটের শিল্পীদের সাংস্কৃতিক পরিবেশনা উপভোগ করেন অতিথিরা।

মন্তব্য দেয়া বন্ধ রয়েছে।

একদম উপরে যান